পোশাক পরিচ্ছদ সফলতাকে প্রভাবিত করে যেভাবে

পরিষ্কার করা যাক: চুড়ান্ত সত্যের বড় ছবিতে, এক জন ব্যক্তি হিসেবে আপনি কে, কেমন এবং আ্পনার মূল্য কী তার কোন কিছুই নির্দেশ করে না। কিন্তু প্রাথমিকভাবে মানুষ আপনাকে বিচার করবে, কিভাবে আমরা দেখি এবং কিভাবে পোশাক পরিচ্ছদ পরি। বিশেষ করে আমাদের কর্মক্ষেত্রে।

কানাডার জাতীয় গবেষনা কাউন্সিল (এনআরসিসি) এক গবেষনায় দেখায় যে, অর্থনৈতিক সফলতা, কর্তৃত্ব, বিশ্বস্থতা, বুদ্ধিমত্তা এবং নিয়োগ দানের যোগ্যতা ইত্যাদি সম্পর্কে ধারনাকে আপনার উপস্থিত দৃষ্টিগোচরতা বা পোষাক আশাক প্রভাবিত করে।

সফলতার জন্য যেগুলোর ইতিবাচক প্রভাব রয়েছে, এখানে কিছু টিপস সম্পর্কে আলোচনা করা হলো:

অতিরিক্ত শরীর দেখাবেন না: তার মানে কোন ছোট/শর্ট শার্ট-‍স্কার্ট, অথবা পা অল্প পরিমানে ঢেকে রাখে এমন জুতা পড়বেন না।

ময়লা কাপড় কখনও পরবেন না: এটি অবশ্যই কার্যকরী। বহু লোক একাধিক বার পরিধান করা জামা লন্ড্রি না করিয়েই বাইরে বেড়িয়ে পরে। নতুন কথা হলো- এটা আর করবেন না।

ভাজ পরা পোশাক পরবেন না: আয়রন সম্পর্কে নিশ্চয়ই জেনেছেন? ব্যবহার করুন। আপনাকে অনেক সুন্দর ও কার্যকরী মনে হবে।

ফিট হয় এমন কাপড় পরুন: কাপড়কে আত্মতৃপ্তিকর করতে টেইলরিং এ গুরুত্ব রয়েছে। এটি আপনাকে দেবে শোভন উপস্থিতি এবং আপনার পাশের লোকজন আপনাকে অন্যরকমভাবে নিবে। তাই এমন কাপড় পরা থেকে বিরত থাকুন যা আপনার শরীরে খুব টাইট কিংবা ঢিলেঢালা হয়।

Spread the love

Comments

comments

Leave a Reply