ভালোবাসি বলার সাতটি উপায়

যে লিডারগন মানব সম্পদকে ভালোবাসেন তাদের সম্পর্কে বলতে গেলে অনেক কিছুই বলতে হবে। যখন কর্মী এবং ক্রেতারা ভালোবাসা পায়, তখন অন্য কোম্পানি কী অফার করছে, তারা খুব কমই খেয়াল করেন। কেন?

মানুষকে নিশ্চয়তা ও উৎসাহ দেয়া হলে এবং ভালো মূল্যায়ন করলে, অন্য দোকান থেকে কেনার কারন খুব কমই থাকে। আপনার টিম বা ক্রেতাদের প্রতি কি ভালোবাসা বিলি করছেন? এখানে সাতটি সরল পথ নিয়ে আলোচনা করা হলো:

১. পুরস্কার

মাসের সেরা কর্মী, সেরা ক্রেতা, ভালো পরিধানকারী, হাস্যকার, এবং সর্বোচ্চ প্রদানকারী- এগুলো নামকরন করুন এবং তার জন্য পুরস্কার এর ব্যবস্থা রাখুন। কাস্টমার এবং কর্মীদের কে পুরস্কৃত করার উছিলা বের করুন। যত ছোট স্বীকৃতিই হোক না কেন, কে তা না চায়? হতে পারে তাদের বিশ্ময়কর অবদানের স্বীকৃতি দেয়াটা, সাধারন একটি সার্টিফিকেট বানানো অথবা ছোট উপহার সামগ্রী কিনার মতো সহজ।

২. নোটস

যাকে উৎসাহ দেন তাকে ছোট একটি স্বীকৃতি নোট পাঠাতে এক মিনিটেরও কম সময় নিবে। কাস্টমারকে উৎসাহ দেয়ার জন্য এতো ছোট নোটই লিখতে পারেন, যতোটা ছোট এই নোটটি: “আপনার তারিফ না করে পারছি না। ধন্যবাদ আমাদের সাথে থাকার জন্য।”

নির্দিষ্ট কোন সফল কাজের জন্য কর্মীকে প্রেষনা দিতে ধন্যবাদ দিতে পারেন।

৩. উপহার

আপনি যার যত্ন নেন, তাকে বিশেষ উপহারের জন্য অনেক টাকা খরচ করতে হবে এমনটা নয়। লেখক এবং উদ্যোক্তা স্ট্যাসি এলকর্ন বলেন, আমার এক সহকর্মী প্রতিদিন স্টারবাকস এ যায় এবং প্রতিদিনিই ছোট ছোট কার্ড নিয়ে আসে।  সে জানে যে আমার মেয়ে গেমস খেলতে ভালোবাসে, তাই, সে আমার জন্য ফ্রি আইফোন এ্যাপসও নিয়ে আসে। তার মানে, সে ভাবছে আমার পৃথিবী হচ্ছে আমার পরিবার। ছোট কিছু দিয়েই পরিবারসহ মন জয় করছে।

৪. সময় কাটানো

ভালোবাসি কথাটি বলার উত্তম উপায় হলো একসাথে খাবার খাওয়া এবং একান্ত কিছু মূহুর্ত অতিক্রান্ত করা। স্ট্যাসি আরও বলেন, এক বন্ধু ৩০০ জনেরও বেশি কর্মী নিয়ে রিয়েল এস্টেটের ব্যবসায় চালাচ্ছে। প্রতি সপ্তাহে কিছু সময় বেধে রাখে, কর্মীদের সাথে দুপুরের খাবার খাওয়ার জন্য। এভাবে, তাদের বিশেষ হিসেবে মূল্যায়ন করার জন্য ৬০-৯০ মিনিট সময় ব্যয় করে। অতি অল্প সময়েই জেনে যায় কর্মীরা কী চায়।

৫. জন্মদিনের শুভেচ্ছা

আপনি যাকে পছন্দ করেন, তাকে তা বুঝানোর জন্য জন্মদিন ঠুকে রাখার চেয়ে শ্রেষ্ঠ আর কী  হতে পারে!! ফেসবুক এ শুধু “শুভ জন্মদিন” বলবেন, আমি কিন্তু এর কথা বলছি না। এটি কিছু সময় পর মুছে যাবে অথবা হারিয়ে যাবে। সুপারিশ করা যায়, একটি কার্ড বা কোন উপহার পাঠান।

বিগত পাচ বছর যাবত এক ব্যবসায়ী যা অনুশিলন করছে, তা হলো কার্ড পাঠানো। প্রতি মাসে সবার জন্মদিনের তালিকা তৈরি করে। তাদেরকে উপহার দেয় এবং বাইরে ঘুরতে যাওয়ার ব্যবস্থা করে দেয়।

৬. পরিবারকে সম্পৃক্ত করা

আপনার ভালোবাসা প্রকাশের সর্বোত্তম পন্থা হলো পরিবারের তারিফ করা। কর্মীকে দেয়ার পাশাপাশি তাদের স্পাউজ, ছেলে-মেয়ে অথবা প্রিয় কাউকেও উপহার দেয়া যায়। যখন কাউকে নিয়োগ দেন, তখন তার পুরো পরিবারকে আপনার সাথে মিলিয়ে নেন। সুতরাং ভালোবাসা দেখানো মানেই হলো একে বাড়িয়ে পরিবার অবধি নিয়ে যাওয়া যারা আপনার কোম্পানিকে সাফল্য এনে দিতে সহযোগিতা করছে।

৭. পিছনে আবার টোকা দিন

শেষ। কিন্তু একদমই ছোট নয়। এর অনেক অতিত ইতিহাস আছে। যখন আপনি দেখবেন কোন টিম মেম্বার বা ক্রেতা ভালো করছে, তাকে ফোন করুন অথবা একান্তভাবে সাক্ষাত করুন আর বলুন “তুমি বিষ্ময়কর। তোমার নিজস্বতার জন্য ধন্যবাদ”

এই সরল পদক্ষেপগুলো আপনার ব্যবসায় এর ভিতরে গুরুত্বপূর্ণ পার্থক্য এনে দিবে। অবশ্যই, ব্যবসায়ের ক্ষেত্রে যা করা খুবই সহজ, তা আবার খুবই কঠিনও হতে পারে। তবে এগুলো কোন সময়ই ক্ষীণ ফলাফল আনবেনা বরং বড় কিছুই এনে দিবে।

Spread the love

Comments

comments

Leave a Reply